Sunday, 5 March 2017

After Hospitals, Private Educational Institutions on Mamata Banerjees Radar


After dealing with private hospitals, next on Chief Minister Mamata Banerjee’s radar are private educational institutions.

“There are a lot of good private schools, colleges and universities but some of them charge so much in terms of fees and donations. Those who can pay up, I have nothing to say but I believe there should be some control without interfering in their autonomy,” Mamata Banerjee said at the state Assembly on Friday.

She said that after the ongoing board exams were over, she would convene a meeting. “Madhyamik exams are on. Then there will be the higher secondary (exams), followed by the ICSE and the CBSE. After the board exams, I will ask the education minister to call authorities of the private educational institutions. They provide education to youngsters who are our future. I will ask authorities of these educational institutions to chalk out a plan so that we can formulate a policy based on that,” she said.

 

বেসরকারি হাসপাতালের পর এবার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নজর মুখ্যমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যের পর এবার মুখ্যমন্ত্রীর নজর বেনিয়মে চলা বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। বেসরকারি হাসপাতালের যথেচ্ছাচার নিয়ন্ত্রণে বিল পেশের মঞ্চ থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন এ কথা।

শুক্রবার স্বাস্থ্য-বিল নিয়ে বক্তব্য রাখতে উঠে শিক্ষার প্রসঙ্গ টেনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এখনও মনে করি, অনেক প্রাইভেট স্কুল খুব ভাল। তবে কেউ কেউ এত বেশি চার্জ নেয়, এত বেশি ডোনেশন নেয়, কোথাও একটা নিয়ন্ত্রণ থাকা দরকার।” পরীক্ষা-মরশুম মিটলেই তিনি বেসরকারি স্কুল-কলেজের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তাঁদের পরামর্শ নিয়েই নির্দিষ্ট নীতি তৈরি করতে চান তিনি।

মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “এতে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের ভাল হবে। ভাল ভাল ছেলে মেয়ে তৈরি হবে। মাধ্যমিক শেষ হয়েছে। উচ্চমাধ্যমিক, সিবিএসই, আইসিএসই রয়েছে। পরীক্ষা শেষ হয়ে গেলেই স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এ ব্যাপারে কথা বলব। ওঁদের বলব, আপনারাই বলুন, কী করা উচিত। দেখতে হবে, কারও যেন অসুবিধা না হয়।” স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেই নির্দিষ্ট নীতি তৈরি করার কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এছাড়া ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে বাংলা বা নেপালির মতো আঞ্চলিক ভাষাকে পাঠ্য বিষয়ের অন্তর্ভুক্ত করায় জোর দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই সমস্ত স্কুলে যাতে বাংলা বা আঞ্চলিক ভাষা পড়ানো হয়, সেদিকে নজর দেবে প্রশাসন।